Sale!

কাটিমন আম

৳ 350.00

“কাটিমন আম,” জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক পর্যাপ্ত মাপের একটি পরিচিত বাঙালি আমের সুপ্রজাতি। এই আমের গন্ধ এবং স্বাদ সাবধানভাবে মিষ্টি, মধুর মত, এবং তার রুপ, রং, এবং স্বাদে অতুলনীয়। কাটিমন আম বেশ সুস্বাস্থ্যকর এবং এটি সামাজিক সাথে মুখ ফুটাতে সাহায্য করতে পারে, এবং এটি বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় ফলের উৎপাদক।

  • ১০০% ফরমালিনমুক্ত এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ এর বাছাইকৃত সেরা আম।
  • সারাদেশে হোম ডেলিভারি ও ক্যাশ অন ডেলিভারি সুবিধা পাচ্ছেন।
  • দ্রুত সময়ের মাঝে আপনার হাতে পোঁছে যাবে আমাদের পণ্য।
  • মিনিমাম অর্ডার ৫ কেজি করতে হবে।

 

 

Description

চাঁপাইনবাবগঞ্জের কাটিমন আম বারোমাসি ও তার গুণগত মান ও স্বাদের জন্য সুপরিচিত অর্জন করেছে।  এই দেশের অনেক রূপের সাধনা সম্পর্কে সার্বিক জানা গিয়েছে, এবং এই সাধনার মধ্যে থেকে একটি আমের জাত সুপরিচিত – কাটিমন আম। কাটিমন আম এর সেবা পাবেন পুরো বছর জুড়ে।

কাটিমন আম এর উৎপত্তি এবং প্রকার ভিত্তিকতা:

কাটিমন আম, যা বৈজ্ঞানিকভাবে ম্যাংগিফেরা ইন্ডিকা নামে পরিচিত, একটি প্রিয় আমের ধরণ বাংলাদেশে। এটি “আম্রপালি” ধরণের আম, যা “দশেরি” এবং “নীলম” আমের একটি সংকরণ, এই আমের বৈজ্ঞানিক নাম। “কাটিমন” নামটি বাংলা শব্দ “কাটি” এবং “মন” থেকে উৎপন্ন, যা দেখানো যায় এই আমের স্বাদের অদ্বিতীয় গুণে মানুষের মন জুড়ে এক বিশাল জায়গা  সৃষ্টি করেছে।

এই আমের বৃদ্ধির শ্রেণিতে বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে চাষ করা হয়, যেমন চাঁপাইনবাবগঞ্জ, এবং নওগাঁ,  যেখানে জলমূল এবং মাটির শর্তগুলি এই আমের চাষের জন্য অনুকূল। এই ফলটি সাধারণভাবে গ্রীষ্মকালে, প্রায় এপ্রিল থেকে জুন মাসে, পর্যাপ্ত বর্ষা আবশ্যকতার সময়ে মানে হারানোর সময়, যেটি আমের উৎসবে পরিণত হয়।

কাটিমন আমের বৈশিষ্ট্য:

কাটিমন আমের বৈশিষ্ট্যের দিক দিয়ে আমরা সময় নেওয়ার চেষ্টা করব, তাদের প্রিয়জনের মানুষের মাঝে এটির উপস্থিতির জন্য।

  1. গন্ধ এবং স্বাদ: কাটিমন আমের অসাধারণ গন্ধ এবং মিষ্টি, মধুর মতো স্বাদের জন্য পরিচিত। একটি পূর্ণরূপে পাকা কাটিমন আমের গন্ধ অপ্রতিরোধ্য, এবং স্বাদটি মিষ্টি হাঁড়ির সাথে একটি সাদৃশ্য  রূপান্তর করিয়ে দেয়।
  2. আকৃতি এবং রঙ: এই আমের আকৃতি সাধারণভাবে মাঝারি থেকে বড় আকারের , এবং সাধারণভাবে তাদের চামড়ায় একটি আকর্ষণীয় রক্ত কমলা থাকে, যা কাটিমন আমের সৌন্দর্য আরো বৃদ্ধি করে।
  3. আঁশমুক্তঃ কাটিমন আম সাধারণত আঁশমুক্ত হয়ে থাকে। যা এটির স্বাদ আরো বৃদ্ধি  করে থাকে এবং এটির পুষ্টি অনেক বেশি।

বাংলাদেশি সাংস্কৃতিক প্রাসঙ্গিকতা:

বাংলাদেশে চাঁপাইনবাবগঞ্জের, আম মানুষের হৃদয়ে একটি বিশেষ স্থান ধরে রেখেছে এবং দেশের সাংস্কৃতিক ও সামাজিক উৎসবের সাথে গভীরভাবে জড়িত। কাটিমন আম, তার অসাধারণ স্বাদ এবং গন্ধের সাথে, বিভিন্ন সাংস্কৃতিক এবং সামাজিক উৎসবের অধিন নেয়। কাটিমন আমের কিছু উপযুক্ত উপকারিতা দেখা যায় বাংলাদেশি চাঁপাইনবাবগঞ্জের সাংস্কৃতিক প্রাসঙ্গিকতার মধ্যে:

  1. উৎসব এবং মেলা: কাটিমন আম বাংলাদেশের উৎসব এবং মেলাগুলিতে একটি প্রধান স্থান ধারণ করে। এগুলির জন্য আম সাধারণভাবে খাওয়া হয়, এবং এই উৎসবের সময় সব বয়সের মানুষের মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জের কাটিমন আমের চাহিদা বৃদ্ধি পেতে থাকছে ।
  2. আমের দান: কাটিমন আম সাধারণভাবে অনেক মানুষের জীবনে একটি বিশেষ ভূমিকা পালন করে, তা না বলতে নেই। এই আম বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নতির সাথে সম্পর্কিত এবং এটি সাম্প্রদায়িক সাথে মুখোমুখি যোগাযোগ এবং সম্প্রদায়ের উন্নতির সাথে সম্পর্কিত আর্থিক কার্যক্রমে সুযোগ সৃষ্টি করে। এই অসাধারণ ফলটি বাংলাদেশের সামাজিক এবং আর্থিক দিকে একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ এবং সাম্প্রদায়িক সাথে সম্পর্কের একটি সাধারণ স্বাদ এবং আসন্ন বাঙালির চাহিদা এই ফলের উপর বৃদ্ধি পাচ্ছে।
কাটিমন আম
কাটিমন আম

কাটিমন আম এবং আপনার স্বাস্থ্য:

কাটিমন আম স্বাস্থ্যের দিক দিয়ে উপযুক্ত এবং পৌষ্টিক ফল হতে পারে, এবং এটি আপনার খাবারে যোগ করতে পারে সাধারণভাবে একটি নতুন মাত্রা । এটি সমৃদ্ধ পৌষ্টিক প্রাণি থেকে প্রাপ্ত হয়, এবং এটি অগ্রাধিকার বিশেষত  প্রোটিন, ভিটামিন, এবং মিনারেলগুলি সরবরাহ করে।

  1. ভিটামিন এ এবং সি: কাটিমন আমে ভিটামিন এ এবং সি পযাপ্ত পরিমাণে রয়েছে, যা ত্বকের স্বাস্থ্য এবং মুখের স্বাস্থ্য সুন্দর ও আকর্ষণীয় করে। সুস্থ্যকর স্বাদে সাথে আপনার খাবারে সামগ্রীকরণ করে।
  2. প্রোটিন: এই আমে প্রচুর পরিমানে প্রটিন রয়েছে যা আপনার প্রটিন এর ঘাটতি পূরণ করবে। প্রোটিন এর  মধ্যে মাংস, দুধ, দই, ইত্যাদি বুঝে থাকি কিন্তু বর্তমানে এই আম প্রোটিন সোর্সের মধ্যে পেতে পারে।
  3. প্রাণী সুরক্ষা: কাটিমন আমে একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রাণী সুরক্ষা সংক্রান্ত উৎপাদণ সূচনা করতে সাহায্য করে। এই আমের চাষ বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নতির সাথে সম্পর্কিত এবং এটি সাম্প্রদায়িক সাথে মুখোমুখি যোগাযোগ এবং সম্প্রদায়ের উন্নতির সাথে সম্পর্কিত আর্থিক কার্যক্রমে সুযোগ সৃষ্টি করে।

কাটিমন আম সেরা কীভাবে স্বাদ নিতে পারেন:

এখন যদি আপনি আমের আমের রুচি চলতে সম্প্রদায়ের সাথে সাম্পর্ক করতে চান, তবে আম স্বাদে সেরে খাওয়ার কিছু স্বাদ নিতে পারেন।

  1. প্রাকৃতিক: সবচেয়ে সাধারণ উপায় হলো আম প্রাকৃতিক অবস্থায় খাওয়া। পূর্ণরূপে পাকা এবং গোলাপী আমগুলি বেশী স্বাদ হওয়া  সম্ভব।
  2. আম সেরে খাওয়া: আমের চামড়া উপর একটি ছাড়াই স্লাইস করা এবং এটি মুখে নিয়ে স্লোভলি স্লাইস করা এবং আমের জুসে ভিগো করা এবং সাথে নিয়ে খেতে পারেন।
  3. আমের চাতনি: আমের চাতনি বানানো হলে এই ফলের স্বাদ আরও উত্তেজনাদায়ক হতে পারে। আপনি চাতনি তৈরি করতে পারেন মিষ্টি মধু,লেবুর রস, বাটি, এবং মসলাগুলির সাথে আমের চাতনি তৈরি করে।
  4. আমের দই: দই এবং আমের সংমিশ্রণ আরও একটি মজার উপায় হতে পারে। আপনি সাধারণ দই বা আমের দই তৈরি করতে পারেন এবং এটি একটি আমের স্লাইস দিয়ে সাজাতে পারেন।

সারসংক্ষেপ:

কাটিমন আম বাংলাদেশের সমৃদ্ধ আমের প্রজাতি, যা তার অন্যরকম স্বাদ এবং অনন্য বৈশিষ্ট্যের জন্য পরিচিত। এই আম বেশী স্বাস্থ্যকর এবং এটি সামাজিক ভাবে মানুষের মুখের স্বাদ বৃদ্ধি করে।  এটি বাংলাদেশের একটি জনপ্রিয় আমের উৎপাদক। এই আম বিভিন্ন স্বাদে এবং খাবারের সঙ্গে পরিবেশিত হতে পারে, এবং সাম্প্রদায়িক উৎসগুলি এবং উৎপাদনের অধিক মধ্যস্থতা এবং সম্প্রদায়ের উন্নতির সাথে সম্পর্কিত আর্থিক কার্যক্রমে সুযোগ সৃষ্টি করে। এই আমের চাহিদা বর্তমানে অনেক আমাদের কাছে পাবেন সেরা মানের ভাল পন্য সাথে পাবেন দ্রূত ডেলিভারি।

 

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “কাটিমন আম”

Your email address will not be published. Required fields are marked *